ক্লোফেনাক কিসের ঔষধ?ডাইক্লোফেনাক এর কাজ কি?Clofenac tablet dam koto

 ক্লোফেনাক কিসের ঔষধ?ডাইক্লোফেনাক এর কাজ কি?Clofenac tablet dam koto?

ক্লোফেনাক® - Clofenac®
উপাদান :

ডাইক্লোফেনাক সোডিয়াম ২৫ও ৫০ মি.গ্রা. ট্যাবলেট। ডাইক্লোফেনাক সোডিয়াম ১০০ মি.গ্রা.এস.আর ট্যাবলেট ও টি.আর ক্যাপসুল। ডাইক্লোফেনাক ফ্রি এসিড ৪৬.৫০ মি.গ্রা. ট্যাবলেট। ডাইক্লোফেনাক সোডিয়াম ৭৫ মি.গ্রা./৩ মি.লি. ইঞ্জেকশন। ডাইক্লোফেনাক সোডিয়াম ৭৫ মি.গ্রা. এবং লিডোকেইন হাইড্রোক্লোরাইড ২০ মি.গ্রা./২ মি.লি. প্লাস ইঞ্জেকশন। ডাইক্লোফেনাক সোডিয়াম ১০ মি.গ্রা./গ্রাম জেল এবং ইমালজেল। ডাইক্লোফেনাক সোডিয়াম ১২.৫, ২৫,৫০ এবং ১০০ মি.গ্রা. মি.গ্রা সাপোজিটরি।

ক্লোফেনাক নির্দেশনা :

রিউমাটয়েড আর্থ্রাইটিস, অস্টিওআর্থ্রাইটিস, কোমরে ব্যথা এবং অন্যান্য পেশী ও অস্থি সংশ্লিষ্ট ব্যথা যেমন টেন্ডিনাইটিস, টেনোসাইনোভাইটিস, বারসাইটিস, মোচড়, টান পড়া, অস্থিসন্ধি সরে যাওয়া, এনকাইলোসিং স্পন্ডিলাইটিস, বাতের তীব্র ব্যথা, দাঁতের ও অন্যান্য মৃদু ধরণের শৈল্য চিকিৎসার ব্যথা ও প্রদাহ নিয়ন্ত্রণে ক্লোফেনাক® নির্দেশিত।

ক্লোফেনাক মাত্রা ও ব্যবহার বিধি :

ক্লোফেনাক® ২৫ মি.গ্রা. ও ৫০ মি.গ্রা. এন্টারিক কোটেড ট্যাবলেট: প্রাপ্ত বয়স্কদের মাত্রা: প্রতিদিন ৭৫-১৫০ মি.গ্রা., ২-৩ টি বিভক্ত মাত্রায় সেব্য। খাবারের পর গ্রহণ করাই শ্রেয়। দীর্ঘদিন ব্যবহারের ক্ষেত্রে মাত্রা কমিয়ে দেয়া উচিৎ।

ক্লোফেনাক® এসআর ট্যাবলেট ও ক্লোফেনাক® ১০০ টি আর ক্যাপসুল : দিনে একটি ট্যাবলেট, প্রচুর পরিমাণ তরলের সাথে খাবারের সাথে গ্রহণ করা শ্রেয়। প্রয়োজনবোধে সাধারণ ট্যাবলেটের সাহায্যে দৈনিক মাত্রা ১৫০ মি.গ্রা. পর্যন্ত ব্যবহার করা যেতে পারে।

ক্লোফেনাক® ডিটি: প্রাপ্তবয়স্কদের মাত্রা : দৈনিক ২-৩ ট্যাবলেট সেব্য এবং দৈনিক সর্বোচ্চ মাত্রা ১৫০ মি.গ্রা.। ক্লোফেনাক® ডিটি খাবারের পূর্বে ব্যবহার করাই শ্রেয়। অন্যান্য রোগের মৃদু প্রকোপে ২ টি ক্লোফেনাক® ডিটি ট্যাবলেট সেবনই যথেষ্ট।

ক্লোফেনাক® ইঞ্জেকশন/ক্লোফেনাক® প্লাস ইঞ্জেকশন: প্রাপ্ত বয়স্কদের ক্ষেত্রে: দিনে একটি এ্যাম্পুল (মারাত্মক অবস্থায় দিনে ২টি) পেশিতে ব্যবহার্য। রেনাল কলিক: দিনে একটি এ্যাম্পুল পেশীতে ব্যবহার্য। ৩০ মিনিট পরে আরও একটি এ্যাম্পুল ব্যবহার করা যেতে পারে। যে কোন পথে ডাইকোফেনাকের দৈনিক সর্বোচ্চ মাত্রা ১৫০ মি.গ্রা.। মাত্রা ও সেবনবিধি (শিরা পথে প্রয়োগের ক্ষেত্রে) শিরা পথে প্রয়োগ করার পূর্বে ০.৯% সোডিয়াম ক্লোরাইড অথবা ৫% গ্লুকোজের সাথে ১০০-৫০০ মি.লি. এর লঘু দ্রবণ তেরী করতে হবে। উভয় দ্রবণকে ৭.৫% এর ০.৫ মি.লি. বাফার দ্রবণ বানাতে হবে।


ক্লোফেনাক কিসের ঔষধ?ডাইক্লোফেনাক এর কাজ কি?Clofenac tablet dam koto

ক্লোফেনাক নির্দেশনা :


১। মাঝারী থেকে তীব্র ব্যথায় (অস্ত্রোপাচার পরবর্তী) ৭৫ মি.গ্রা. ৩০ মিনিট থেকে ২ ঘন্টা ধরে শিরা পথে প্রয়োগ করতে হবে। ইহা ৪ থেকে ৬ ঘন্টা পর পর পূনরাবৃত্তি করা যাবে। তবে যেকোন ২৪ ঘন্টার মধ্যে মাত্রা ১৫০ মি.গ্রা. অতিক্রম করা যাবে না।

২। অস্ত্রোপাচার পরবর্তী ব্যথা প্রতিরোধে: অস্ত্রোপাচার এর পরে ২৫ থেকে ৫০ মি.গ্রা. শিরাপথে প্রয়োগ করতে হবে ১৫ মিনিট থেকে ১ ঘন্টার মধ্যে। পরবর্তীতে প্রতি ঘন্টায় ৫ মি.গ্রা. করে দৈনিক সর্বোচ্চ ১৫০ মি.গ্রা. পর্যন্ত প্রয়োগ করা যেতে পারে।


ক্লোফেনাক® জেল : ক্লোফেনাক® জেল ত্বকে মৃদুভাবে ঘষে ব্যবহার করা হয়। আক্রান্ত জায়গার আয়তনানুসারে ২-৪ গ্রাম ক্লোফেনাক® জেল দিনে ৩-৪ বার ব্যবহার করা যেতে পারে। ব্যবহারের পর আক্রান্ত জায়গা ব্যতীত হাত ভালভাবে ধুয়ে ফেলা উচিৎ। বৃদ্ধদের ক্ষেত্রে: প্রাপ্তবয়স্ক মাত্রায় ব্যবহার্য।


ক্লাফেনাক® ইমালজেল এর মাত্রা: ক্লোফেনাক® সাপোজিটরি : প্রাপ্তবয়স্কদের ক্ষেত্রে: ২৫ মি.গ্রা. , ৫০ মি.গ্রা. বা ১০০ মি.গ্রা. সাপোজিটরি, দিনে ৭৫-১৫০ মি.গ্রা. বিভক্ত মাত্রায় ব্যবহার্য। শিশুদের ক্ষেত্রে: ১২.৫ মি.গ্রা. অথবা ২৫ মি.গ্রা. সাপোজিটরি দিনে প্রতি কেজি দৈহিক ওজনের জন্য ১-৩ মি.গ্রা. করে বিভক্ত মাত্রায় ব্যবহার্য। দিনে ১৫০ মি.গ্রা. এর বেশী ডাইক্লোফেনাক সোডিয়াম ব্যবহার করা যাবে না।



ক্লোফেনাক সতর্কতা ও যেসব ক্ষেত্রে ব্যবহার করা যাবে না :

ডাইক্লোফেনাক-এর প্রতি সংবেদনশীলতা, সক্রিয় অথবা সম্ভাব্য পেপটিক আলসার, পরিপাকতন্ত্রের রক্তক্ষরণ ইত্যাদি ক্ষেত্রে দেয়া যাবে না। যে সমস্ত রোগীর এসপিরিন অথবা যে সকল ওষুধের প্রোষ্টাগানডিন সিনথেটেস এর বাধাদান করার কার্যক্ষমতা থাকার জন্য হাঁপানী, আর্টিকারিয়া অথবা একিউট রাইনাইটিস এর তীব্রতা বাড়ে, সে সমস্ত রোগীদের ক্ষেত্রে ক্লোফেনাক® দেয়া যাবে না।

ক্লোফেনাক পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া :বিভিন্ন পার্শ্ব-প্রতিক্রিয়ার মধ্যে আছে পরিপাকনালীর অস্বস্তি পরিপাকতন্ত্রের রক্তক্ষরণ পেপটিক আলসার, ইত্যাদি।

ক্লোফেনাক অন্য ওষুধের সাথে প্রতিক্রিয়া : লিথিয়াম, ডিগক্সিন, এন্টিকোয়াগুলেন্ট, এন্টিডায়াবেটিক, সাইক্লোস্পোরিন, মিথোট্রেক্সেট ইত্যাদি।

ক্লোফেনাক গর্ভাবস্থা ও স্তন্যদানকালে ব্যবহার : গর্ভাবস্থায় সেবনযোগ্য নয় ক্লোফেনাক। তথাপি অন্য কোন উপায় না থাকলে কেবল মাত্র তখনই ডাইক্লোফেনাক সেব্য যোগ্য । ডাইক্লোফেনাক ৫০ মি.গ্রা. ৮ ঘন্টা অন্তর সেবন করলে ডাইক্লোফেনাক এর সক্রিয় উপাদান মাতৃদুগ্ধে প্রবেশ করে কিছু । কিন্তু প্রবেশ মাত্রা এতই সামান্য যে কোনরূপ পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয় না ।



সরবরাহ :

ক্লোফেনাক® ২৫ ট্যাবলেট : ১০ x ১০ টি।

ক্লোফেনাক® ৫০ ট্যাবলেট : ২০ x ১০ টি।

ক্লোফেনাক® ডিটি : ৫ x ১০ টি।

ক্লোফেনাক® এস আর ট্যাবলেট : ১০ x ১০ টি।

ক্লোফেনাক® ১০০ টি আর ক্যাপসুল : ৫ x ১০ টি।

ক্লোফেনাক® ইঞ্জেকশন : ৫ x ২ টি।

ক্লোফেনাক® প্লাস ইঞ্জেকশন : ২ x ৫ টি।

ক্লোফেনাক® ১% জেল : ১০ গ্রাম টিউব।

ক্লোফেনাক® ইমালজেল : ২০ গ্রাম টিউব।

ক্লোফেনাক® ১২.৫ সাপোজিটরি : ২ x ৫ টি।

ক্লোফেনাক® ২৫ সাপোজিটরি : ৩ x ৫ টি।

ক্লোফেনাক® ৫০ সাপোজিটরি : ৪ x ৫ টি।


ক্লোফেনাক ১০০
ডাইক্লোফেনাক এর কাজ কি
ক্লোফেনাক জেল এর কাজ কি
ডাইক্লোফেনাক ১০০ টি আর এর কাজ কি
ডাইক্লোফেনাক এস আর ১০০
ডাইক্লোফেনাক কিসের ঔষধ?ডাইক্লোফেনাক এর কাজ কি?
ক্লোফেনাক জেল এর দাম
ডাইক্লোফেনাক ৫০ এর কাজ কি
clofenac tablet price in bangladesh
clofenac 100 mg

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

নবীনতর পূর্বতন

যোগাযোগ ফর্ম